নারী তুমি অনন্যা

তুমি প্রেয়সী ললনা!
দুর্গতিনাশিনী তুমি অনন্যা,
তুমি আলোকিত কর অঙ্গন,
তুমি মহান হে অঙ্গনা।

তুমি দিগ্বিজয়ী বিজয়া-জায়া
সকল সৃষ্টিশীল কর্মের প্রেরণা!
সুখে কি দুখে দিন কি রাতে
সকল সময় তুমি রও পাশে
তোমার নেই কোন উপমা,
তুমি নিরুপমা তুমি অনুপমা!

শত আদরের বোনটি তুমি;
স্নেহময়ী কণ্যা তুমি,
চির-বন্ধু মায়ের প্রতিচ্ছবি;
তোমার হাঁসিতে দূর হয়ে যায়
ক্লান্তি-আঁধার-বিষাদ-বেদনা,
ঠোটের কোনে জেগে উঠে রবি!

তুমি তুলনাহীনা সহধর্মিণী
সংসার রনাঙ্গনে তুমি সেনানী
তুমি জয়িতা, তুমি গরবিনী
তোমাতে বিশ্ব-ব্রম্মান্ড চির-ঋণী!

সকল কর্মে তুমি পারদর্শী,
তুমি অঘটনঘটনপটিয়সী।
তুমি সবার উপরে তুমি মা
তুমি জন্মদাত্রী মহান জননী।

বিশ্ব নারী দিবসে আমরা সকলে
বিনয়াবনত ভালবাসার কথা বলি।
হোক প্রত্যয় হৃদয় থেকে
প্রতিদিন যেন জানাতে পারি
নারীর প্রতি বিনম্র অতল শ্রদ্ধান্জলি!


রচনাটি অন্য ভাষায় পড়ুন
English Spanish Hindi Portuguese Arabic Chinese Russian Japanese

বিঃদ্রঃ মুক্তকলাম সাহিত্য ডায়েরি, লেখকের মতপ্রকাশের পূর্ণ স্বাধীনতার প্রতি সম্মান রেখে, কোন লেখা সম্পাদনা করা হয়না। লেখার স্বত্ব ও দায়-দায়িত্ব শুধুমাত্র লেখকের।
আপনার রচিত সাহিত্যসমগ্র স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ এবং বিশ্বের কোটি পাঠকের কাছে পৌঁছে দিতে আজই যুক্ত হউন।