ধর্ষকদের বিংশ উনিশ

আব্দুল হান্নান

হে বিংশ উনিশের মাতৃ লোলুপ পুরুষ তোমাদের ধিক্কার,
তোমরা মানবের বেশধারী মুখোশ পরা শয়তান বদকার।
আমি পদাঘাত করি তোমাদের পাপিষ্ঠ পুরুষ সমাজকে,
মায়েদের কাছে প্রতিটা বিশ্বাস তোমরা ভঙ্গ করে চলেছো,
তোমরা লম্পট তোমাদের কাছে মাতৃ জাতির কেউ নিরাপদ না।
তোমার মা, বোন, এমন কি তোমার মেয়ে ও নিরাপদ না।
বিংশ উনিশে কলংকিত অধ্যায় রচনা করেছো তোমরা,
স্বাধীনতা যুদ্ধে পাক হানাদারেরা ও শিশু ধর্ষন করেনি,
জাহালিয়াতের যুগে শিশু হত্যা থাকলেও ধর্ষন ছিলনা।
তোমাদের ভাল সাজার আর কোন অজুহাত থাকলো না,
তুমি ধর্ষক না হলেও ধর্ষক সম পাপিষ্ঠ অপরাধী,
তোমার চোখের সামনে তোমার সমাজে ধর্ষণ হয়,
তুমি শুধুই কান পেতে শোন আর ভাবো আমার না,
তুমি ধর্ষকের পক্ষে কথা বলো, উকালতি করে মুক্ত করো,
তুমি কি একবার শুনেছো ধর্ষিতা শিশুর মায়ের আর্তনাদ?
তুমি কি একটু শুনেছো ধর্ষিতাদের পিতামাতার ফরিয়াদ?
আমি ধিক্কার দেই আমাকে, আমি কেন পুরুষ এ সমাজের,
আমি পদাঘাত করি আমাকে, কেন ধরতে পারিনা সমশের।
ইতিহাস করবেনা ক্ষমা, যখন জানবে অনাগত ভবিষ্যত,
তোদের কবরে করিবে প্রস্রাব মানবেনা তালিম তরবিয়্যত।
এক অনিরাপদ মায়ের গর্ভে জন্ম আর এক অসহায় মায়ের,
 আমি পদাঘাত করি আমাকেে, আমি পুরুষ এই জাতির ধর্ষকের

English Translate


  • পড়া হয়েছেঃ ২৪
  • লেখার সময়ঃ বুধবার, ১৪ আগস্ট ২০১৯
  • লেখার স্থানঃ Rangamati
  • প্রকাশিতঃ বুধবার, ১৪ আগস্ট ২০১৯

বিঃদ্রঃ মুক্তকলাম সাহিত্য ডায়েরি, লেখকের মতপ্রকাশের পূর্ণ স্বাধীনতার প্রতি সম্মান রেখে, কোন লেখা সম্পাদনা করা হয়না। লেখার স্বত্ব ও দায়-দায়িত্ব শুধুমাত্র লেখকের।