মা


রোজ সকালে ঘুম ভাঙে যার মিষ্টি একটা ডাকে
সকাল টা আরও মিষ্টি হয় যার মিষ্টি চায়ের কাপে।
যার প্রার্থনাতে ভালো কাটে, আমার সারাদিন,
শোধ হবেনা কনোকিছুতে তার স্নেহের ঋণ।
শুভ কাজে বেরোই যখন মা মাথায় রাখো হাত
আমার জন্য জেগে তোমার কেটেছে কতই রাত।
তবুও মা আমায় কেন এত্ত ভালবাসো?
কেউ হয়না ক্যানো তোমার মতো আমায় বলতে পারো।
শত কাজের মাঝেও যখন শোনো আমার কান্না
সব ফেলে ছুটে আসো তোমার প্রানে সইনা।
দৌড়ে এসে ক্যামন করে বুকে তুলে নাও
আদর দিয়ে সোহাগ দিয়ে সব ভুলিয়ে দাও।
মাথাতে না রাখে মা
যদি উঁকুনেতে খায়
মাটিতে না রাখে মায়ে
পিঁপড়ে কেটে যায়।
কে এমন আছে বলো এমন ভালোবাসে
বিনাস্বার্থে একমাত্র মা ই ভালোবাসে।
যায় আমি যত দূরে তোমার আদর মনে পড়ে,
ইচ্ছে করে ছুটে গিয়ে দেখি একবার মা তোমারে।
কি জানি কি কেমন করে বুজতে সবই পারো
কি ক্ষমতা তোমার আছে নেইতো অন্য কারো।
ক্ষুধা নেই বললেও তুমি খাওয়াও নানান ছলে
যতন করে তোমার ঐ মিষ্টি হাতে তুলে।
অগোছালো এই আমাকে গুছিয়ে রাখিস তুমি
ঐ নয়নের তারা আমি আমার মা তুমি।
একটু খানি অনিয়ম দাওনা বকুনি মোরে
মায়ের মত কেউ মেলেনা দুনিয়া আসলে ঘুরে।
ঐ শাসনে যে সুধা আছে, অন্য কোথাও নাই
তাইতো আমি সারা জীবন তোমায় পাশেই চাই।
হে বিধাতা রক্ষা করো সকল বিপদ থেকে,
আমার আয়ু দিয়ে হলেও বাঁচিয়ে রেখ মাকে।
যার কারনে আজকে আমার এই জগতে আসা,
যার কাছে প্রথম শেখা আমার বাংলা ভাষা।
আমায় ছেড়ে যেও না মা একটি দিবা রাতি,
চাইনা আমি তোমায় ছাড়া এই পৃথিবীর খ্যাতি।
তুমি আমার সুখের চাবি আমার প্রিয় মা,
কোনকিছুই তোমার সাথে হয়না তুলনা।
তুমি আমার মক্কা, মা তুমি মদিনা
তোমায় ছাড়া জান্নাতেরই মা চাবি মেলেনা।
আমি জান্নাত যাবো মাগো তোমার পায়ে দিও ঠাঁই
মায়ের মতো এতো আপন এ জগতে নাই।
মা তোমার সেবা করার সুযোগ যেন সব সন্তানের হয়
বুকের পাজরে জায়গা দিও বৃদ্ধাশ্রমে নয়।


রচনাটি অন্য ভাষায় পড়ুন
English Spanish Hindi Portuguese Arabic Chinese Russian Japanese

বিঃদ্রঃ মুক্তকলাম সাহিত্য ডায়েরি, লেখকের মতপ্রকাশের পূর্ণ স্বাধীনতার প্রতি সম্মান রেখে, কোন লেখা সম্পাদনা করা হয়না। লেখার স্বত্ব ও দায়-দায়িত্ব শুধুমাত্র লেখকের।
আপনার রচিত সাহিত্যসমগ্র স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ এবং বিশ্বের কোটি পাঠকের কাছে পৌঁছে দিতে আজই যুক্ত হউন।