মাগফিরাতের বৃষ্টি

জৈষ্ঠ্য ভরা রৌদ্র কড়া
কৃষাণ কাটে ধান,
দূর মসজিদে যাচ্ছে শোনা মোয়াজ্জিনের আযান।
তপ্ত দুপুর নেইকো বাতাস রমজানেরই মাস,
ক্লান্ত সবাই, মলিন মুখ, গরম দীর্ঘশ্বাস।
হচ্ছে ভাজা গরম তেলে বেগুনী, আলুর চপ
ধুকছে কুকুর, ঝিময় মোরগ যাচ্ছে কারো দম।
ব্যাঙের বিয়ে, নফল নামাজ বৃষ্টির মোনাজাত
একটু খোদা বৃষ্টি দাও কতই আর্তনাদ।
ডাকার মতো ডাকলে তাঁরে ফিরিয়ে না দেন
রোজাদারের দোয়া আল্লাহ্ কবুল করে নেন।
মাগফিরাতের বিকেল বেলা হঠাৎ ঝড়োহাওয়া
এক হাওয়াতে ওলোটপালোট উষ্মআবহাওয়া।
উড়িয়ে এলো আধারকালোই পূবের মেঘের বৃষ্টি,
তপ্ত মাটি শীতল হলো, শীতল হলো সৃষ্টি।
ভিজলো আকাশ, ভিজলো মাটি, ভিজলো কৃষ্নচূড়া,
ডাকছে ব্যাঙ, নাচছে পাখি
খুশিতে পাগলপারা।
সবুজ সবুজ আমের পাতা
হাসছে ভিজে ভিজে,
পাতিহাঁসের মনেও তাই আনন্দ কম কিসে!
অনেক চাওয়ার বৃষ্টি যেন ফিরিয়ে দিল প্রাণ
আমার আল্লাহ্ মেহেরবান।


রচনাটি অন্য ভাষায় পড়ুন
English Spanish Hindi Portuguese Arabic Chinese Russian Japanese

বিঃদ্রঃ মুক্তকলাম সাহিত্য ডায়েরি, লেখকের মতপ্রকাশের পূর্ণ স্বাধীনতার প্রতি সম্মান রেখে, কোন লেখা সম্পাদনা করা হয়না। লেখার স্বত্ব ও দায়-দায়িত্ব শুধুমাত্র লেখকের।
আপনার রচিত সাহিত্যসমগ্র স্থায়ীভাবে সংরক্ষণ এবং বিশ্বের কোটি পাঠকের কাছে পৌঁছে দিতে আজই যুক্ত হউন।