নারী সে তো জোৎস্না

নারী সে তো,
কখনও কখনও জোৎস্না ভরা রাত
কখনও অপারাজিতা নীল
কখনও দক্ষিণা হাওয়া, ফুটন্ত গোলাপ
বেলি আর হাসনাহেনার সৌরভ
কখনও সে শীতল পরশ,
নীরবে বয়ে যাওয়া শান্ত নদী,
নারী সে কেবলই মায়াবতী, মমতাময়ী
সে কখনও কখনও শান্তির আবাস ভূমি
তারপরও কেনো
তার জীবনে জল্লাদের পদচারনা
শকুনের হিংস্র থাবা
তার চারপাশে ক্ষুধার্থ হায়েনার ঘোরাঘুড়ি
কেনো তার কোমল শীতল শরিরটাকে নিয়ে টানাটানি
কেনো তার শরীরটাকে খুবলে ছিড়ে রক্তাক্ত করা
সে তো নয় কেবলই মাংসের পিন্ড
সে তো নয় কেবলি যুবতীর শরীর।

English Translate


  • পড়া হয়েছেঃ ১৩২
  • লেখার সময়ঃ বৃহঃস্পতিবার, ১৬ মে ২০১৯
  • প্রকাশিতঃ বৃহঃস্পতিবার, ১৬ মে ২০১৯

বিঃদ্রঃ মুক্তকলাম সাহিত্য ডায়েরি, লেখকের মতপ্রকাশের পূর্ণ স্বাধীনতার প্রতি সম্মান রেখে, কোন লেখা সম্পাদনা করা হয়না। লেখার স্বত্ব ও দায়-দায়িত্ব শুধুমাত্র লেখকের।