পিরোজপুরে থানা-হাজত থেকে আসামির পলায়ন


পিরোজপুরে থানা-হাজত থেকে সালমান খান (২৪) নামের এক আসামি পালিয়ে গেছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল সাতটার দিকে পিরোজপুর সদর থানা-হাজতে এ ঘটনা ঘটে।

সালমান খান পিরোজপুর সদর উপজেলার উদয়কাঠী গ্রামের দুলাল খানের ছেলে। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যা, মাদক ও নারী নির্যাতনসহ চারটি মামলা আছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গতকাল বুধবার রাতে সালমান খানকে একটি চুরি মামলার সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে আটক করে পুলিশ। আজ সকাল সাতটার দিকে সালমান পানি পান করতে চাইলে দায়িত্বরত পুলিশ সদস্য হাজতখানার দরজা খুলে তাঁকে পানি দেন। এ সময় সালমান তাঁকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়ে দৌড়ে থানা-হাজত থেকে পালিয়ে যান।

পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নুরুল ইসলাম বলেন, সকালে থানায় পুলিশ সদস্যদের উপস্থিতি কম থাকার সুযোগে সালমান সহজে পালিয়ে যান। ঘটনার পর তাঁকে গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হচ্ছে। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যাসহ চারটি মামলা আছে। সেসব মামলায় তিনি জামিনে ছিলেন। গতকাল রাতে তাঁকে একটি চুরির মামলার সন্দেহভাজন আসামি হিসেবে আটক করা হয়েছিল।

পিরোজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও তদন্ত) মোল্লা আজাদ হোসেন আজ সকালে পিরোজপুর সদর থানা পরিদর্শন করেন। এ সময় তিনি বলেন, পলাতক সালমানকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের ব্যাপক অভিযান শুরু করেছে। পুলিশের কারও অবহেলা পাওয়া গেলে এ ব্যাপারে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।



সংশ্লিষ্ট সংবাদ